এসকে সিনহার ১১ বছরের কারাদণ্ড

এসকে সিনহার ১১ বছরের কারাদণ্ড
এসকে সিনহার ১১ বছরের কারাদণ্ড

ফারমার্স ব্যাংক (বর্তমানে পদ্মা ব্যাংক) থেকে চার কোটি টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাতের মামলায় সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহার ১১ বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত।

ঋণ জালিয়াতি ও অর্থ আত্মসাতের মামলায় সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহাকে পৃথক দুটি ধারায় ১১ বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ৪৫ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের কারাদন্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। রায়ে একই সঙ্গে আট জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত।

কারাদন্ডপ্রাপ্ত অপর আসামিরা হলেন- ফারমার্স ব্যাংকের (বর্তমান পদ্মা ব্যাংক) সাবেক অডিট কমিটির চেয়ারম্যান মাহবুবু হক চিশতী, ফারমার্স ব্যাংকের (বর্তমান পদ্মা ব্যাংক) সাবেক এমডি এ কে এম শামীম, সাবেক এসইভিপি গাজী সালাহউদ্দিন, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট স্বপন কুমার রায়, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট সাফিউদ্দিন আসকারী, ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. লুৎফুল হক, রনজিৎ চন্দ্র সাহা ও তার স্ত্রী সান্ত্রী রায়। এদের মধ্যে এমডি এ কে এম শামীমের চার বছরের কারাদন্ড ও বাকি আসামিদের তিন বছর করে কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত।

আরও জানুনঃ বিচারপতি সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে করা অর্থ আত্মসাৎ মামলার রায় আজ

টাঙ্গাইলের বাসিন্দা মো. শাহজাহান ও একই এলাকার বাসিন্দা নিরঞ্জন চন্দ্র সাহার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের খালাস দেওয়া হয়েছে।

রায়ে সিনহাকে অর্থ পাচারের মামলায় সাত বছর কারাদন্ডের পাশাপাশি ৪৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া ঋণ জালিয়াতির দায়ে চার বছর কারাদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর মীর আহমেদ আলী সালাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, এসকে সিনহার বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং আইনে একটি ধারায় সাত বছর ও দন্ডবিধি আইনের একটি ধারায় চার বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। দু’টি ধারার সাজা একসঙ্গে চলবে বলে আদালত আদেশে উল্লেখ করেন।

তিনি আরও বলেন, জব্দ করা সিনহার ৭৮ লাখ টাকা বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

Advertisement